সর্বশেষ :

রাঙামাটি প্রতিনিধি :

জল-পাহাড়ের ভাঁজে ভাঁজে লুকিয়ে থাকা রূপ মাধুর্যের শ্যামল ক্যানভাস রাঙামাটি পার্বত্য জেলা। পার্বত্য জেলা রাঙামাটির অবারিত সৌন্দর্যের হাতছানি দেশী-বিদেশী পর্যটকদের মনে দোলা দেয় প্রতি মুহূর্তে, যার দুর্নিবার আকর্ষণে পর্যটকরা ফিরে ফিরে আসেন এখানে। রাঙামাটির কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎ প্রকল্প, কাপ্তাই লেক, সুবলং ঝর্ণা, ঝুলন্ত ব্রিজ, সাজেক ভ্যালী এর সৌন্দর্যে অবগাহন করতে প্রতি বছর অসংখ্য পর্যটকের আগমন ঘটে এখানে। দূর-দূরান্ত থেকে আগত পর্যটকদের থাকার জন্য রাঙামাটিতে গড়ে উঠেছে অসংখ্য রিসোর্ট। এসকল রিসোর্টের মধ্যে দারুণ এক রিসোর্ট হচ্ছে আরণ্যক রিসোর্ট। কাপ্তাই হ্রদের অপার সৌন্দর্য দিয়ে ঘেরা এই রিসোর্টটি পর্যটকদের দারুণভাবে কাছে টানে।

আরণ্যক হলিডে রিসোর্ট, রাঙামাটি

রাঙামাটি শহরের সেনানিবাস এলাকায় কাপ্তাই হ্রদের পাশে গড়ে উঠা এই রিসোর্টটি অত্যন্ত দৃষ্টিনন্দন একটি জায়গা। লেক এবং পাহাড় ঘেরা অপরূপ প্রাকৃতিক পরিবেশে গড়ে ওঠা আরণ্যক রি‌সোর্ট যে‌নো শিল্পীর নিপুন হাতে আঁকা এক‌ জলছ‌বি। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে পরিচালিত অপূর্ব সুন্দর ও নিরাপদ এ রি‌সো‌র্টের ছিমছাম পরিবেশ আপনা‌কে মুগ্ধ কর‌বেই। চোখ জুড়ানো সৌন্দর্যের আধার এ রি‌সোর্টে প্রধান আকর্ষণ হচ্ছে এর মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশ ও কাপ্তাই লে‌কের নীল জলরাশিতে প্যাডেল বো‌টে ম‌নের আন‌ন্দে ঘুরে বেড়া‌নো।‌ পরিবার পরিজন নিয়ে যে কোনদিন আপনি বেড়াতে চলে আসতে পারেন এখানে।

আরণ্যক হলিডে রিসোর্ট, রাঙামাটি

কাপ্তাই লেকের অসাধারণ প্রাকৃতিক পরিবেশে দারুণ কিছু সময় কাটবে আপনার। আর যদি সেটা কোন পুর্নিমার রাত হয় তবে তো কথাই নেই। দিনের আরণ্যক যেমন সুন্দর তেমনি দুর্দান্ত তার রাতের পরিবেশও। এই রিসোর্টটি সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে থাকায় নিরাপত্তা নিয়েও কোন সমস্যায় পরতে হয় না। এর দুর্দান্ত নির্মাণশৈলী আপনার নজর কাড়বে অনায়াসে। এর প্রবেশ মূল্য ৫০ টাকা।

আরণ্যক হলিডে রিসোর্ট, রাঙামাটি

লেকের পাড়ে সবুজ ঘাসে মোড়ানো আরণ্যক রিসোর্টের প্রথম অংশে আছে নান্দনিক ফুলের বাগান, নানা রকম ভাস্কর্য, রিসোর্ট, স্পিডবোট ও প্যাডেল বোটে চড়ার সুবিধা এবং কফি শপ। এর দ্বিতীয় অংশের হ্যাপি আইল্যান্ডে আছে ওয়াটার ওয়ার্ল্ড, পার্ক, রাইডার এবং লেকভিউ সুইমিং পুল। হ্যাপি আইল্যান্ডের ওয়াটার ওয়ার্ল্ডে প্রবেশ মূল্য ১৫০ টাকা। শুধু ঘুরে বেড়া‌নোই নয়, আরণ্যক রি‌সো‌র্টে রয়েছে থাকা-খাওয়ারও সুব্যবস্থা।  প্রতি সোমবার শুধুমাত্র দর্শনার্থীদের জন্যে প্রবেশ বন্ধ থাকে।

আরণ্যক হলিডে রিসোর্ট, রাঙামাটি

কিভাবে যাবেন :

ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে নিয়মিত বাস সার্ভিস রয়েছে রাঙামাটিতে। প্রতিদিন অসংখ্য এসি, নন-এসি বাস চলাচল করে এই রুটে। তাদের মধ্যে রয়েছে হানিফ, শ্যামলী, এস আলম, ইউনিক, সৌদিয়া ইত্যাদি। এসব বাসে চেপে যেতে হবে রাঙামাটি শহরে। এরপর সেখান থেকে আপনাকে পৌঁছতে হবে আরণ্যক রিসোর্টে। রিসোর্টটি যেহেতু রাঙামাটি শহরে প্রবেশের আগে অবস্থিত, তাই আপনি চাইলে রিসোর্টের সামনেই নেমে পরতে পারেন। সেক্ষেত্রে বাসের সুপারভাইজারকে আগে থেকে বলে রাখতে হবে।

আরণ্যক হলিডে রিসোর্ট, রাঙামাটি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *